বিউটি টিপস

ব্রণ দূর করার ও দাগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কার্যকারি উপায়–latenightdream.com

ব্রণ দূর করার কার্যকারি উপায়ঃ Natural Solution for Acne

 

ব্রণ মূলত ত্বকের সমস্যা বা প্রদাহ Acne Problem। What is Acne ব্রণ দেখতে ছোট ছোট লালচে দানা বা ফুস্কুরির মত হয়।ব্রণ সাধারনত মুখমন্ডলে যেমন গালে, কপালে, থুতনীতে, ঘাড়ে বেশী হতে দেখা যায় এছাড়াও বুকে ও হাতের উপরিঅংশে ও হতে দেখা যায়।

এটি সাধারণত বয়ঃসন্ধিকাল থেকে শুরু করে ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত বেশী পরিমানে দেখা যায় তবে প্রাপ্তবয়স্ক দের ও ব্রণ হতে পারে। সাধারনত তরুন তরুনী রা এই সমস্যায় বেশী ভুগে থাকে। এটি একটি সাধারণ সমস্যা হলেও নানা কারণে দীর্ঘমেয়াদী সমস্যায় রুপান্তরিত হতে পারে।

 

ব্রণ কেনো হয়ঃ Why Acne ?

মূলত বয়ঃসন্ধিকাল এর সময় হতে বিভিন্ন হরমোনাল পরিবর্তনের কারণে ত্বকের তেলগ্রন্থি থেকে বেশী তেল নিঃসরণ হয়ে লোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে এর সূচনা হয়। এছারাও আরো অনেক কারণে এটি হতে পারে যেমন- মানষিক চাপ, দূশ্চিন্তা , রাত জাগা , পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুম না হওয়া, স্বাস্থকর খাবার এর অভ্যাস না থাকা যেমন বেশি পরিমানে তেল জাতীয় খাবার খাওয়া শাক সবজি না খাওয়া সঠিক ভাবে ত্বক পরিষ্কার না করার কারনে ব্রণ হতে পারে।

ব্রণ হওয়ার আরো কিছু কারণঃ More Cause of Acne

  • পেটের সমস্যা-বা কোষ্ঠকাঠিন্যতার Constipation কারণে ব্রণ Acne হতে পারে।
  • পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান Drink Water না করা।
  • গরমে বেশী ঘামের কারণে লোমকুপ বন্ধ হয়ে গেলে।
  • বিভিন্ন কসমেটিক্স Cosmetics এর ব্যাবহারের কারণে।
  • মহিলাদের গর্ভাবস্থায় হরমোনের পরিবর্তন Hormonal Disbalance হয় একারনেও ব্রণ হতে পারে।
  • মহিলাদের ঋতুস্রাবের Meanstruation সাথেও ব্রণ হওয়ার সম্পর্ক রয়েছে।
  • অতিরিক্ত ঘন মেকআপ Makeup করলে।
  • জন্মনিয়ন্ত্রণ Birth Control এর ওষুধ, স্টেরয়েড Steroid, খিচুনি ও মানসিক রোগ Mental Disease এর ওষুধ খাওয়ার কারনেও ব্রণ Acne হতে পারে।

 

ব্রন হয়ে গেলে করণীয় কিঃ Solution for Acne

 

  • ভালো মানের সাবান Soap বা ফেসওয়াশ Facewash দিয়ে মুখ ধোয়া।
  • ব্রণ হলে আক্রান্ত স্থান কিছুটা চুলকায় একারণে অনেকেই নখ দিয়ে খোচায় যা একেবারেই করা উচিত নয়।
  • ব্রণ নখ দিয়ে চাপ দিলে দীর্ঘমেয়াদি দাগ Spot হয়ে যেতে পারে তাই নখ দিয়ে চাপ Press দেওয়া উচিত নয়।
  • মানষিক চাপ Mental Stress পরিহার করা।
  • রাত না জাগা।
  • পর্যাপ্ত ঘুম নিশ্চিত করা।
  • ফাস্ট ফুড Fast Food বা তেল জাতীয় খাবার পরিহার করা।
  • প্রচুর পানি পান করা, ফল ও শাক সবজি Fruit and Vegitable খাওয়া।

ব্রণ দূর করার এবং মুক্তির উপায়ঃ Remove Acne and Release way

মুখ পরিষ্কার করাঃ ব্রণ এর যন্ত্রনা সব মানুষকেই পোহাতে হয় ক’দিন আগে বা ক’দিন পরে। ব্রণ হওয়ার আগে তো কোনো চিন্তা নেই । একবার হলেই যত চিন্তা, বসে বসে শুধু চিন্তা করলেই তো সমাধান হয়ে যাবে না তাই বের করতে হবে সঠিক সমাধান। আর চিন্তা করলে ব্রণ এর উপদ্রব আরো বেড়ে যেতে পারে তাই চিন্তা করা থেকে সাবধান।

ব্রণ হওয়ার আগে থেকে মুখের যত্ন তো নেবোই কিন্তু ব্রণ হয়ে গেলে যত্নের মাত্রা বারিয়ে দিতে হবে অনেক গুন।

বিশেষ করে তৈলাক্ত ত্বক বিশিষ্ঠ মানুষ দের পরিশ্রম টা আরো একটু বেশি হয় কারণ তৈলাক্ত ত্বকে সাধারন ত্বকের চেয়ে বেশি উপদ্রব দেখা দেয়।

বাহিরে থেকে আসার সাথে সাথেই ভালো ভাবে মুখ ধুয়ে নিতে হবে এছারাও নিয়মিত দিনে কয়েকবার মুখ ধোয়ার অভ্যাস করতে হবে যেনো মুখে তৈলাক্ত ভাব বা ধুলো বালি জমে থাকার আশঙ্কা না থাকে। ঠান্ডা পানির থেকে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুইলে তুলনা মুলক ভাবে ভালো ফল পাওয়া যায়। মুখ ধোয়া হয়ে গেলে পরিস্কার ও নরম তোয়ালা দিয়ে আলতো করে মুখ মুছে নিতে হবে।

ব্রণ এর জন্য ক্ষতিকর এমন সাবান বা ফেসওয়াশ ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

 

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায় ও টিপ্সঃ Home Tips for Remove Acne

রূপচর্চা ও সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে প্রাকৃতিক উপাদানের জুড়ি নেই। তেমনি বিভিন্ন সমস্যার সমাধান ও হয়ে যায় নিমিষেই তাই ব্রণ ও এর দাগ নির্মূল করতে ভরসা রাখুন ঘড়োয়া পদ্ধতির উপর। যা অত্যন্ত কার্যকর ও ত্বকের কোন ক্ষতিও হবে না সাথে ত্বকের উজ্জ্বলতা ও বৃদ্ধি হবে।

আসুন জেনে নেয়া যাক ব্রণ ও এর দাগ দূর করার কার্যকরী উপায়- Acne Spot Remove

 

  • পরিমান মত কাচা হলুদের গুড়া, টক দই ও এক চামচ মধু  Honey একসাথে মিশিয়ে নিন, এবার মিশ্রণ টি মুখ এবং ঘাড়ে হাল্কা করে লাগিয়ে নিন। ১০ মিঃ পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তারপর একটি পরিস্কার কাপরে বরফের টুকরা নিয়ে হাল্কা করে ঘষুন এতে হলুদের দাগ দূর হয়ে যাবে এবং লালচেভাব দূর হবে এবং জ্বালা কমে যাবে। এই পদ্ধতিতে দ্রুত ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন। হলুদ এবং মধুতে এন্টিব্যাক্টেরিয়াল গুন থাকায় ব্রণের দাগ দূর করতে সহায়তা করে ও দই ত্বকের ঝলমলতা ফিরিয়ে আনে।
  • সরিষাতে প্রচুর পরিমাণ স্যালিসাইলিক এসিড বিদ্যমান যা ব্রণের জীবানু ধ্বংস করে পরিমান মত সরিষা গুড়ার সাথে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিঃ পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এতে ব্রণ এর পাশাপাশি দাগ ও দূর হবে।
  • যেখানে ব্রণ আছে সেই সব জায়গায় লেবুর lemon রস লাগিয়ে নিন , তারপর ডিমের egg সাদা অংশ পুরো মুখে লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষন পর ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণ দূর হওয়ার সাথে মুখের কালচে ভাব ও দূর হবে।
  • গ্রীন টি একটু বেশী করে ফুটিয়ে নিন তারপর ঠান্ডা করে মুখে লাগান ব্রণ অনেকটা কমে যাবে।
  • টমেটো ত্বকের সংক্রমন দূর করতে বিশেষ কার্যকরি, কেটে টুকরা করে বা রস করে মুখে লাগান এতে অনেকটা উপকার পাবেন।
  • ভিনেগার Vineger ব্রণ দূর করতে ও চমৎকার কাজ করে তুলোয় লাগিয়ে ব্রনের উপর লাগান কিছুক্ষন পর ধুয়ে ফেলুন ।

 

মুখের ত্বক সবচেয়ে বেশী সংবেদনশীল সঠিক ভাবে যত্ন না নিলে স্থায়ি ভাবে মুখে ক্ষত তৈরি হয়ে মুখের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে তাই অত্যন্ত সাবধানতার সাথে মুখের যত্ন নিতে হবে।

দীর্ঘদিন যাবত যারা এই সমস্যায় ভুগতেছেন কোনভাবেই নিয়ন্ত্রনে আসছে না তারা আর দেরি না করে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ এর পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহন করুন।

 

 

……………….…………………..>>>>>>>>>>>>ধন্যবাদ<<<<<<<<<<<<………..…………………….

Show More
Back to top button